যৌন হেনস্থার অভিযোগ নিয়ে কড়া নিয়ম চালু করতে চলেছে বিসিসিআই,আওতায় ক্রিকেটাররা

Spread the love

#মুম্বই: ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (BCCI) কঠোর সিদ্ধান্ত। যৌন হেনস্থার (Sexual Harrashment) অভিযোগ নিয়ে কঠোর নিয়ম চালু করতে চলেছে বিসিসিআই। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে যুক্ত কারোর বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ প্রমাণ হলে কঠোর শাস্তির মুখে পড়তে হবে দোষীকে। বোর্ডের এপেক্স কাউন্সিলের বৈঠকে যৌন হেনস্থা সংক্রান্ত (Sexual Harrashment) বিষয় নিয়ে দীর্ঘ আলোচনা হয়। বৈঠকে ঠিক হয় একটি আভ্যন্তরীণ কমিটি গঠন করা হবে। আওতায় চুক্তিবদ্ধ হবেন ভারতীয় ক্রিকেটাররাও (Indian Cricketers)৷

কমিটিতে চারজন সদস্য থাকবেন। গঠিত কমিটির প্রিজাইডিং অফিসার হবেন একজন মহিলা। আইন সংক্রান্ত ধারণা রয়েছে এবং সামাজিক কাজকর্মের সঙ্গে যুক্ত এমন দুজনকে নেওয়া হবে কর্মচারীদের মধ্যে থেকে। চতুর্থ ব্যক্তি হবেন বোর্ডের বাইরের লোক যার যৌন হেনস্তার প্রতিরোধ নিয়ে কাজ করার অভিজ্ঞতা রয়েছে। বিসিসিআইয়ের (BCCI) সঙ্গে যুক্ত কোন ব্যক্তির বিরুদ্ধে যদি যৌন হেনস্থার অভিযোগ ওঠে কিংবা কেউ যদি যৌন হেনস্থার শিকার হন তাহলে অভিযোগকারীকে কমিটির কাছে তিন মাসের মধ্যে লিখিত অভিযোগ করতে হবে। তবে কিছু কিছু ক্ষেত্রে তিন মাসের বদলে ৬ মাস পর্যন্ত সময় দেওয়া হবে। সে ক্ষেত্রে দেখা হবে ভুক্তভোগী তিন মাসের মধ্যে কমিটির কাছে অভিযোগ দায়ের করার সম্ভবনা কতটা কঠিন ছিল।

Read Also:  মেকআপ রুমেই বুকের দুধ পাম্প করছেন বিদেশী নায়িকা!অভিনেত্রী যখন মায়ের ভূমিকায়

অভিযোগ পাওয়ার এক সপ্তাহের মধ্যে অভিযুক্ত কাছ থেকে জবাব চাইবে কমিটি। চিঠি পাওয়ার ১০ দিনের মধ্যে অভিযুক্তকে জবাবদিহি করতে হবে। তারপর তদন্ত শুরু হবে। অভিযোগ পাওয়ার তিন মাসের মধ্যে তদন্ত শেষ করে কমিটি রিপোর্ট জমা দেবে বোর্ডের কাছে। বোর্ড নিজেদের সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেবে কমিটিকে। এরপর চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত কমিটি জানাবে। অভিযুক্ত তিন মাস পর্যন্ত সময় পাবে রায়ের বিরুদ্ধে আদালতে যাওয়ার জন্য। যৌন হেনস্থা নিয়ে বিসিসিআই যে নীতি চালু করতে চাইছে তাতে থাকবেন বোর্ডের সঙ্গে যুক্ত প্রত্যেকেই।

Read Also:  উচ্ছেবাবুর মতো বর আমার একদম পছন্দ নয়: সৌমিতৃষা

বোর্ডের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ সমস্ত ক্রিকেটারও (Indian Cricketers) এই নীতির আওতায় থাকবেন। এছাড়াও জাতীয় ক্রিকেট অ্যাকাডেমির আধিকারিক থেকে শুরু করে ধারাভাষ্যকার, ম্যাচ অফিশিয়াল, প্রোডাকশনের প্রত্যেকেই থাকবেন। এমনকি বোর্ড অফিসের কর্মকর্তারাও এর আওতায় পড়বেন। অভিযুক্তের বিরুদ্ধে দোষ প্রমাণ হলে সংশ্লিষ্ট সেই ব্যক্তির আর্থিক জরিমানা থেকে চাকরি যাওয়া পর্যন্ত শাস্তি হতে পারে। অতীতে বোর্ডের আধিকারিকের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ উঠেছিল। বোর্ডের প্রাক্তন সিইও রাহুল জোহরির বিরুদ্ধে মি টুর অভিযোগ ওঠে। পরে রাহুলকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল।

Read Also:  Ukrainian Plane Hijacked: কাবুলে অপহৃত ইউক্রেনের বিমান ! উড়িয়ে নিয়ে যাওয়া হল ইরানে

 ERON ROY BURMAN

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *